৪ ছাত্রকে নির্যাতনকারীদের বহিষ্কার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক ,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলের আবাসিক শিক্ষার্থী মুকিমসহ চার শিক্ষার্থীকে নির্যাতনকারী ছাত্রলীগ নেতাদের বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

মুকিমের বিভাগ ট্যুরিজম এণ্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্টের শিক্ষার্থীরা আজ এ দাবি জানান। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাস বিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে আয়োজিত এক মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানান তারা। কর্মসূচিতে তিন শতাধিক শিক্ষার্থী অংশ নেন।

মানববন্ধনে দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী কবিতা বলেন, ‘আমাদের বন্ধু মুকিমসহ চারজন ছাত্রকে নিষ্ঠুরভাবে মারা হয়েছে। সে শিবির করে নাকি অন্যকোনো দল করে সেটা একান্তই তার ব্যক্তিগত বিষয়। তাকে মারার অধিকার কারো নেই। সে যদি কোনো অপরাধ করে থাকে, তাহলে সেটার বিচারে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আছে।’

আরেক শিক্ষার্থী বলেন, ‘কিছুদিন আগে আবরাকেও শিবির আখ্যা দিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে। এরপর আমাদের বন্ধু মুকিমেও একইভাবে নির্যাতন করা হলো। এরপর আমাকে-আপনাকেও এভাবে মারা হবে।’

এসময় তারা ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে চার দফা দাবি উপস্থাপন করেন। দাবিগুলো হল- যারা মুকিমের উপর অন্যায়ভাবে পাশবিক নির্যাতন চালিয়েছে তাদের বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার ও দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দেওয়া; একটা নিরাপদ ক্যাম্পাস, যেখানে স্বাধীনভাবে মত প্রকাশ ও স্বাধীনভাবে চলাফেরা করা যাবে এবং রাজনৈতিক মতের প্রতিফলন ঘটানো যাবে; আবাসিক হলগুলোতে সাধারণ শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে, প্রথম বর্ষ থেকেই হলে সিট বরাদ্দ দিতে হবে; এবং সিট বাণিজ্য বন্ধ করতে হবে।

এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার না হওয়া পর্যন্ত তারা তাদের আন্দোলন চালিয়ে যাবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন। এছাড়াও আগামী রোববার এই ঘটনার বিচারের দাবিতে বিশ্ববিদ্যায় উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি দেবেন বলেও জানিয়েছেন ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের শিক্ষার্থীরা।