1. admin@tungiparanews.com : নিউজ ডেস্ক : নিউজ ডেস্ক
  2. akjoy20@gmail.com : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:১৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
কোটালীপাড়ায় কলেজছাত্রীকে ইভটিজিং করায় ৪ বখাটের বিরুদ্ধে মামলা গোপালগঞ্জে বাক প্রতিবন্ধী জামিলকে রিক্সা দিলেন মামাস কাঠি ইউপি নির্বাচন : সম্ভাব্য প্রার্থী শেখ রোমানের পথসভা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে গোপালগঞ্জ রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের নব নির্বাচিত কমিটির শ্রদ্ধা ডিডিজেএফ এর উদ্যোগে ‘হাওড় উৎসব’ অনুষ্ঠিত টুটুল চৌধুরীকে পুনরায় ইউপি চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় ইউনিয়নবাসী গোহালায় নৌকা প্রতীক চান আওয়ামীলীগ নেতা শেখ ইকবাল গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় বিয়ে বাড়িতে হামলা : বাড়ি ঘর ভাংচুর, লুটপাট গোপালগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যানের প্রতিবাদ সংবাদ সম্মেলন চিড়িয়াখানা খুলতে পারে ২৫ আগস্টের মধ্যে

শুধু সিনেমা নয়, বঙ্গবন্ধুর বায়োপিক একটা দলিল

Reporter Name
  • আপডেট : বুধবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২১

বাংলা সিনেমার অন্যতম জনপ্রিয় নায়ক সিয়াম আহমেদ। সময়ের অন্যতম ব্যস্ত নায়কও তিনি। এত ব্যস্ততার মাঝেই তিনি গত বছর আগস্ট মাসে নিজ নামে ইউটিউব চ্যানেল শুরু করেন। খুব অল্প সময়ের মধ্যে তার চ্যানেলটি পেয়েছে দর্শকপ্রিয়তা। ইতোমধ্যে তার ইউটিউব চ্যানেলের সাবসক্রাইবার সংখ্যা ১ লাখ ৪০ হাজার ছাড়িয়েছে। যার স্বীকৃতির পুরস্কার হিসেবে ইউটিউব থেকে সিলভার বাটন পেয়েছেন সিয়াম আহমেদ। ইউটিউব স্বীকৃতি এবং আরও বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা হলো সিয়াম আহমেদের সঙ্গে। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন- ফয়সাল আহমেদ

আপনার ইউটিউব চ্যানেলের সাবসক্রাইবার সংখ্যা ১ লাখ ৪০ হাজার ছাড়িয়েছে। স্বীকৃতি হিসেবে পেয়েছেন সিলবার বাটন।

প্রত্যেকটা স্বীকৃতি ডেফিনেটলি অনেক আনন্দের। চ্যানেলটির শুরু থেকে যারা সম্পৃক্ত ছিলেন তাদের অনেক ধন্যবাদ পাশে থাকার জন্য।

লম্বা সময় প্রায় সাত মাস পর আপনার ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ পেয়েছে সিয়াম আহমেদ শো এপিসোড ২। তৃতীয় পর্ব দেখতে দর্শকদের আবার কত সময় অপেক্ষা করতে হবে?

একটা শো প্ল্যান করার জন্য শুধু সিয়াম আহমেদ একা রিলেটেড নয়। এখানে আরও অনেক মানুষজন রিলেটেড থাকে। এ ছাড়া দেশে এখন মহামারী চলছে। সবকিছু ঠিকঠাক হোক, সবাই একটু সেফ হোক। তবে আমার মনে হয় পরবর্তী পর্বের জন্য খুব বেশিদিন অপেক্ষা করতে হবে না দর্শকদের।

সম্প্রতি বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের শুটিংয়ে অংশ নিয়েছেন। সেই অভিজ্ঞতা সম্পর্কে কিছু বলুন।

বঙ্গবন্ধুর বায়োপিক শুধু একটা সিনেমা নয়। এর থেকে বেশি কিছু। এটা একটা দলিল হয়ে থাকবে। আমি এখানে ছোট একটা চরিত্রে কাজ করছি। বঙ্গবন্ধু বায়োপিকে অভিনয়ের অভিজ্ঞতা খুব ভালো। একটা নতুন টিমের সঙ্গে কাজ করলাম। খুব এক্সপেরিয়েন্সড, খুব যত্ন করে বুঝিয়ে বুঝিয়ে কাজ করানোর মতো একটা টিম। আশা করি দর্শক খুব পছন্দ করবে। যারা বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের সঙ্গে জড়িত আছেন তাদের জন্য শুভকামনা।

গতবার ঈদে আমাদের দেশে কোনো ছবি মুক্তি পায়নি। এবারও সে রকম সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। করোনার মাঝে সিনেমা হল খুলে দিয়ে নতুন ছবি মুক্তি দিলেও মানুষ সিনেমা হলে যাবে কিনা তা নিয়ে আছে সংশয়। সিনেমা হলের পাশাপাশি আমাদের অন্য মাধ্যমও চিন্তা করার সময় কি এসেছে? আপনার কী মনে হয়?

যারা সিনেমার সঙ্গে অনেকদিন যাবৎ জড়িত, আসলে যারা বিজ্ঞ মানুষ তারা এই প্রশ্নের প্রকৃত উত্তর দিতে পারবেন। একজন আর্টিস্ট হিসেবে আমি কিন্তু কখনই চাইব না আমি বছরের পর বছর কাজ করে যাব আর আমার কাজ দর্শক দেখতেই পাবে না। সেদিক থেকে আমাদেরও খারাপ লাগে। কাজটা দর্শকদের দেখাতে ইচ্ছা করে। আমরা ঈদের জন্য যে সিনেমাটা করেছিলাম ‘শান’। এই ছবির সঙ্গে সাড়ে তিন বছর যাবৎ কমবেশি যুক্ত আছি সবাই। আমরা জানি এই সিনেমাটা মানুষ বড় স্ক্রিনে না দেখলে দর্শক সেই আরামটা পাবে না। এখন যতকিছুই বলেন বিগ স্কিলের সিনেমা কিন্তু বিগ স্ক্রিনেই ভালো লাগে। এটা বিগ স্ক্রিনকে উদ্দেশ করেই বানানো হয়। সেটা যদি দর্শক ওটিটিতে দেখে তা হলে তারা কতটুকু উপভোগ করতে পারবে সেটা আসলে আমি জানি না আর আমি আমার অডিয়েন্স ফিডব্যাকটা পাব কিনা তাও আমি জানি না। তবে গল্পটা দেখাতে পারব এটাই শান্তি। তবে অনেক ফিল্ম আছে আমি শিউর, যেগুলো ওটিটিতে রিলিজ দেওয়া পসিবল। যেগুলো অনেক বেশি বিগ স্কিলের ছবি হয়ে যায় সেই ছবিগুলো বিগ স্ক্রিনে রিলিজ দেওয়া মেন্ডেটারি হয়ে যায়। সেই ছবিগুলো অডিয়েন্সকে বড় স্ক্রিনে দেখানোর জন্যই বানানো। তবে আমার কাছে মনে হয় ডিসিশনগুলো আসলে এখন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ও নির্মাতাদের। তারা তাদের চলচ্চিত্রটি কোন মাধ্যমে দর্শকদের দেখাতে চায়? ওটিটি যদি সামনে চলেও আসে বা কোনো ফিল্ম যদি সরাসরি ওটিটিতে রিলিজ দেয় এটাতে আসলে অন্য কিছু মনে করারও অবকাশ নেই। পৃথিবী কিন্তু ওই রাস্তাতেই হাঁটছে।

ওয়েব সিরিজ মরীচিকাতে কাজ করেছেন। ভবিষ্যতে সিয়াম আহমেদকে আরও বেশি ওয়েব সিরিজে দেখা যাবে কি?

গল্প ভালো হলে, চরিত্র ভালো হলে, কনটেন্ট সময় উপযোগী হলে কেন নয়? অবশ্যই! আমরা তো ভালো কাজ করতে চাই। ইনশাআল্লাহ দেখা যাক। আসলে মরীচিকার পরে এখনো পছন্দের কোনো ওয়েব সিরিজের গল্প পাইনি। যেটা সিলেক্ট করেছি সে রকম কোনো খবর এখন পর্যন্ত নেই। যদিও ফিল্ম নিয়েই বেশি ব্যস্ত ছিলাম। যদি সময়-সুযোগ হয়, যদি ভালো ডিরেক্টর, ভালো প্রডাকশন হাউস, সবকিছু মিলিয়ে গল্পটা যদি ভালো হয় তা হলে সামনে ওয়েব সিরিজে দেখা যেতে পারে।

পেন্ডামিকের কারণে কিন্তু সিয়াম আহমেদের অনেকগুলো ছবি মুক্তি আটকে আছে। দর্শকরা কিন্তু অধীর অপেক্ষায় আছে সেই ছবিগুলোর জন্য। এই অবস্থায় আপনার দর্শকদের উদ্দেশে কিছু বলুন…

আপনাদের অপেক্ষা আরেকটু লম্বা করার জন্য সরি। মাফ করে দেবেন। এই দেরি আমাদের অনাকাক্সিক্ষত। কারণ যখন আমরা কাজ করেছি তখন ফ্যামিলিকে সময় না দিয়ে, দিনরাত এক করেই কাজ করেছি। সেই কাজটা যদি শেষ পর্যন্ত সময়মতো না দেখাতে পারি সেটা আমার কাছেও অনেক কষ্টের। আশা করি সেটা আপনারা সবাই বুঝতে পারবেন। আপনারা যেহেতু সাপোর্ট করা কখনো বন্ধ করেননি তো এই কাজগুলোর জন্য একটু অপেক্ষা করুন। সাপোর্টটা রাখুন। আমার মনে হয় যে, শুধু আমাদের ফিল্মগুলোই নয়, আশপাশের যত ফিল্ম আছে এবং ইন্ডাস্ট্রিতে যে ফিল্মগুলো ভালো করছে অথবা সামনে বড় ব্যানারে আসছে প্রত্যেকটা ফিল্ম কিন্তু ইন্ডাস্ট্রির জন্য পজিটিভ একটা রাইট নিয়ে আসছে। আমরা তো পজিটিভ থাকার চেষ্টা করছি, আপনারাও একটু পজিটিভ থাকার চেষ্টা করুন। ইনশাআল্লাহ সব ঠিক হয়ে যাবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর