অপরাধ

মির্জাপুরে শ্বশুরবাড়িতে প্রবাসীর স্ত্রীকে খুনের অভিযোগ

শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে দুই দিনের মাথায় সাউথ আফ্রিকা প্রবাসীর স্ত্রী সাদিয়া আক্তার (২৫) খুন হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার রাতে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার ১৩ নম্বর বাঁশতৈল ইউনিয়নের জুড়ান মার্কেট (জুড়ান বাজার) এলাকার একটি বাড়ি থেকে দুই হাত পেছনে বাঁধা ও ফাঁসিতে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এদিকে ঘটনার পর থেকেই বাড়ির লোকজন পলাতক রয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সাউথ আফ্রিকা প্রবাসী মো. ওয়াজেদ আলীর স্ত্রীর নাম সাদিয়া আক্তার। সাদিয়ার পিতার নাম সেলিম মিয়া, গ্রামের বাড়ি আজগানা ইউনিয়নের বেলতৈল গ্রামে। আর সাউথ আফ্রিকা প্রবাসী ওয়াজেদ আলীর পিতার নাম রফিক মিয়া।

সাদিয়ার পিতা সেলিম মিয়া জানান, মেয়ের জামাই সাউথ আফ্রিকায় থাকায় বাড়ির লোকজনদের দেখা শোনার জন্য সাদিয়া শ্বশুর বাড়িতেই বেশিরভাগ সময় থাকতো। রোজার কয়েক দিন আগে সাদিয়া শ্বশুর বাড়ি থেকে তাদের বাড়িতে বেড়াতে আসে। দুই দিন আগে আবার শ্বশুর বাড়ি চলে যায়। তাদের অভিযোগ মেয়ের জামাই প্রবাসে থাকায় শ্বশুর বাড়ির লোকজন সাদিয়াকে নানাভাবে অত্যাচার নির্যাতন করে আসছিল। সোমবার রাতে পরিবারের লোকজন পরিকল্পিতভাবে সাদিয়াকে খুন করে ওড়না দিয়ে দুই হাত পিছনে বেঁধে লাশ ফাঁসিতে ঝুলিয়ে রাখে। বাড়ির লোকজন ও আশপাশের লোকজন সাদিয়ার লাশ ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে পুলিশকে খবর দেয়। রাতে মির্জাপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার উপ-পরিদর্শক মো. আজিম উদ্দিনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, দুই হাত ওড়না দিয়ে পেচানো অবস্থায় গৃহবধূ সাদিয়ার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। সাদিয়ার স্বামী মো. ওয়াজেদ আলী সাউথ আফ্রিকা প্রবাসী। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য থানায় আনা হয়েছে। পুলিশের ধারনা এটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড।

তবে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এ ঘটনায় এখনো কোনো মামলা হয়নি।

এই বিভাগের সর্বশেষ খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button