গোপালগঞ্জে ক্রয়কৃত সম্পতির দলিল চাওয়ায় হুমকি : পুরুষ শূর্ন আনন্দ বালার বাড়ি ।

গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার খেলনা গ্রামের কৃষক আনন্দ চন্দ্র বালা ২০১২ সালে একই এলাকার লোকমান শেখের কাছ থেকে ষ্টাম্পের মাধ্যমে ৫ শতাংশ জমি ক্রয় করেন । যার বাজার মূল্য ছিল দুই লক্ষ ত্রিশ হাজার টাকা । পরবর্তীতে দলিল করে দিবে বলে প্রতিশ্রুতি দিলেও এখনো দলিল দেয়নি লোকমান শেখ ।

এ বিষয়ে আনন্দ চন্দ্র বালার সাথে কথা হলে তিনি জানান, ২০১২ সালে লোকমান শেখ বিদেশ যাওয়ার জন্য আমার কাছ থেকে দুই লক্ষ ত্রিশ হাজার টাকা নেয় বিনিময়ে আমাকে বসবাস করার জন্য ৫ শতাংশ জমি দিবে বলে একটি ষ্টাম্প দেয় । আমি ষ্টাম্প পেয়ে টাকা দিয়ে দেই । জমি ও বুঝে নেই । আমি বর্তমানে সেই জমিতে বসবাস করছি । লোকমান বিদেশ থেকে আসার পরে আমি দলিল চাইলে আমাকে দলিল দিতে অস্বীকার করেন । বলে তোমার কাছে আমি জমি বিক্রি করি নাই, তোমাকে ফ্রি তে থাকতে দিছি । আমার জমি জায়গা খালি করে দাও। পরে আমি এলাকায় লোকদের জানাই তারা শালিসের মাধ্যমে আমাকে জমি বাবদ চার লক্ষ টাকা দিবে বিনিময়ে আমাকে জমি ছেড়ে দিতে হবে । আর তার ষ্টাম্প ফেরত দিয়ে দিতে হবে বলে জানান । আমি রাজি হই । কিন্তু তারা আমাকে টাকা না দিয়ে ষ্টাম্প নেওয়ার জন্য জোড় করেন । আমি দিতে রাজি না হলে আমাকে সহ আমার ছেলেকে মারধর করে আমার বাড়ি থেকে বের করে দেয় । আজ অবদি আমি বাড়িতে ফিরতে পারছি না । তারা প্রতিদিন আমার স্ত্রীকে ধমকায় বলে তোরা হিন্দু মানুষ তোদের দেশ ভারতে এখান থেকে চলে যা না হলে তোদের লাশ ও ঘুম করে দিবো। আমার নামে ৪ টা মাডার মামলা আছে তোর মত হিন্দুরে মারলে আমার কিছুই হবে না বলে হুমকি দিচ্ছে । আমার পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে । আমি সরকারের কাছে আমার পরিবারের নিরাপত্তা সহ আমার ক্রয়কৃত জমির দলিল পওয়ার জন্য আবেদন করছি ।

এ বিষয়ে লোকমানের পরিবারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা জানান, লোকমান বাড়িতে নাই । আর আমরা এ বিষয়ে কিছুই বলতে পারবো না ।