শাজাহান খানের একান্ত প্রচেষ্টায় ৭৬ দিনের খাবার পেল মাদারীপুরের বানররা

নিজস্ব প্রতিবেদক,দীর্ঘদিন পর মাদারীপুরে বানরের জন্য খাবার (৭৬ দিনের) বরাদ্দ হয়েছে। গত সোমবার দুপুর থেকেই বিভিন্ন স্থানে ভ্যানগাড়ীর মাধ্যমে কলা, গাজর ও শসা দেওয়া হয়।

এ সময় ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের সদস্যসহ জেলা বন বিভাগের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। এই খাবার আগামী দিনগুলোতেও একইভাবে দেওয়া হবে।

জানা যায়, মাদারীপুরের মেসার্স ঝলক বিজনেস সেন্টার নামে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে সরকারি বরাদ্দকৃত এই খাবার চরমুগুরিয়া ইকোপার্ক এলাকাসহ শহরের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে ঘুরে বিকেল ৩টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বানরকে খাওয়ানো হয়।

খাবারের তালিকায় ছিল ১২০ কেজি কলা, ৬০ কেজি গাজর ও ৬০ কেজি শশা। মাদারীপুর সদর উপজেলার বন্দর নগরী চরমুগুরিয়ায় প্রায় আড়াই হাজার বানরের মাঝে এই খাবার বিতরণ করার চেষ্টা করা হয়।

মাদারীপুর জেলা বন বিভাগের কর্মকর্তা তাপস কুমার সেন গুপ্ত বলেন, চরমুগুরিয়া এলাকায় অনেক বানর রয়েছে যা ঠিকমতো খেতে পারত না, মানুষের দোকানপাট ও বাড়ি ঘরে চুরি করে যা খেত তা আসলে এদের জন্য যথেষ্ট ছিল না। মানুষদের বিরক্ত করে বেড়াত, এরাও বিভিন্ন অত্যাচারের শিকার হতো। তাই সাবেক নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান এমপির ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বর্তমানে ৭৬দিনের খাবারের কর্মসূচি পেয়েছি।

তিনি আরও বলেন, আগামী ৩ বছরের জন্য আমরা বরাদ্দ পাব বলে জানতে পেরেছি। এতে করে আমরা ইকোপার্কের ভেতরে চরমুগুরিয়ার সমস্ত বানরকে বনায়ন প্রক্রিয়ায় স্থানান্তর করতে পারব বলে আশা করি।